1. forhad.one@gmail.com : Forhad Shikder : Forhad Shikder
  2. s.m.amanurrahman@gmail.com : pD97wRq9D9 :
সরিষা চাষ লাভজনক হওয়ায় আগ্রহী কৃষকরা - Top News
শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন

সরিষা চাষ লাভজনক হওয়ায় আগ্রহী কৃষকরা

প্রতিবেদকের নাম
  • আপডেট বৃহস্পতিবার, ২ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৩২৬ সময়

অনলাইন ডেস্ক : চলতি রবি মৌসুমে রেকর্ড পরিমাণ সরিষার আবাদ হয়েছে মাদারীপুর জেলায়। মৌসুমি সরিষা চাষ লাভজনক হওয়ায় আবাদে মনোযোগ দিয়েছে জেলার শিবচর উপজেলার কৃষকরা। এছাড়াও কয়েকদিন আগে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত চাষিরা কম পুঁজিতে বেশি ফলন পাওয়ার আশায় সরিষা চাষ করেছেন।

জেলা কৃষি অফিস সূত্র জানায়, এ বছর জেলায় ১৪ হাজার ৫৯৫ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। আর চাষ হয়েছে ১৩ হাজার ২৮০ হেক্টর জমিতে। জেলার কৃষকরা স্থানীয় জাতের পাশাপাশি বারি সরিষা-৪, ৯, ১৪ ও ১৫, বিনা-৪ ও ১১, টরি-৭, এসএম-৭৫ সরিষার আবাদ করে লাভের মুখ দেখছেন।

জেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, মাঠে চাষ করা হয়েছে বিভিন্ন জাতের সরিষা। শিবচর উপজেলার উল্লেখযোগ্য বাঁশকান্দি, ভান্ডারীকান্দি, বহেরাতলা, উমেদপুর, ভদ্রাসন, পাচ্চর, বন্দরখোলা, কুতুবপুর, কাদিরপুর, দ্বিতীয়খণ্ড ইউনিয়নসহ কালকিনি উপজেলার চর কয়ারিয়া, বাঁশগাড়ী ও সাহেবরামপুর এলাকায় সরিষা চাষ করা হয়েছে। ফসলের মাঠের শোভাও বাড়িয়ে তুলেছে সরিষা ক্ষেত। মাঠের চারিদিক যেন হলুদে হলুদে পরিপূর্ণ। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে সরিষার বাম্পার ফলনের আশা করছেন কৃষকরা।

শিবচর উপজেলার কৃষক রতন মাদবর বলেন, ‘কয়েকদিন আগের ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ৪ বিঘা জমিতে আগাম জাতের সরিষার চাষ করেছি। গত কয়েক বছর ধরেই ধান চাষে তেমন লাভ হয় না। আর এ কারণেই প্রতি বছরই লোকসান গুনতে হচ্ছে। তাই বিকল্প ফসল হিসেবে অন্য ফসলের পাশাপাশি সরিষা চাষের প্রতি আগ্রহী হয়েছি।’

একই উপজেলার বহেরাতলা গ্রামের কৃষক আজম শিকদার বলেন, ‘চলতি মৌসুমে সার, বীজ, কীটনাশক সরবরাহের পাশাপাশি প্রায় দুই বিঘা জমিতে সরিষার চাষ করেছি। সরিষার ফলন ভালো হয়েছে। ফুলও এসেছে। এখন ভালো ফলন আশা করছি। এরপর সরিষা তুলে নিয়ে ওই জমিতে বোরো ধান লাগাবো।’

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক জিএমএ গফুর জানান, চলতি মৌসুমে জেলায় রেকর্ড পরিমাণ জমিতে সরিষার চাষ করা হয়েছে। তবে আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে সরিষার আবাদ থেকে কৃষকরা বাড়তি মুনাফা আয় করতে পারবেন। এছাড়া চলতি বছর বিঘাপ্রতি সরিষার পরিমাণ ধরা হয়েছে সাড়ে ৫ থেকে ৬ মণ।

প্রতিবেদন শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো খবর
© All rights reserved © 2020 Top News
Theme Developed BY ThemesBazar.Com
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com